গণতন্ত্রক্লাবের সাথে জঙ্গিক্লাবের আপোষ গণতন্ত্রের জন্য আত্মঘাতী-তথ্যমন্ত্রী

0
778

ঢাকা: বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০১৭, নোঙরনিউজ ডটকম: গণতন্ত্রক্লাবের সাথে জঙ্গিক্লাবের আপোষ গণতন্ত্রের জন্য আত্মঘাতী’ বলে উল্লেখ করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ’৬৯ এর গণঅভ্যূত্থানে শহীদ আসাদের ৪৮তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (মা.লে.) আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এ কথা বলেন।

হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘বাংলাদেশের রাজনীতিতে দু’টি ক্লাব। গণতন্ত্র ও প্রগতির ক্লাবের নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আর জঙ্গি, যুদ্ধাপরাধী ও সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসীক্লাবের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া। এই দুই ক্লাবের আপোষ ফর্মুলা গণতন্ত্রের জন্য আত্মঘাতী হবে এবং জঙ্গিদের পক্ষে যাবে। সুতরাং দেশকে নিরাপদ করতে জঙ্গি-সন্ত্রাসীলক্লাবকে নির্মূল করার বিকল্প নেই।’

এ সময় বিএনপিনেত্রীর উদ্দেশ্যে জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘নির্বাচন-সংলাপ পরে, আগে জঙ্গি, জামাত, রাজাকার ছাড়–ন। নির্বাচন কখনই জঙ্গি, জঙ্গিসঙ্গী, যুদ্ধাপরাধী ও তাদের দালালদের গণতন্ত্রে হালাল করার সুযোগ হতে পারেনা।’

আগামী নির্বাচনের আগেই জঙ্গি ও তাদের পৃষ্ঠপোষকদের ষড়যন্ত্র থেকে জনগণকে বাঁচানোর ওপর জোর গুরুত্ব আরোপ করে হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘যদি বাংলাদেশে আর হলি আর্টিজান, শোলাকিয়া, ব্লগার হত্যা, বিদেশি হত্যা না দেখতে চান, তবে আগামী নির্বাচনের আগেই জঙ্গি ও তাদের সঙ্গীদের নির্মূল করতে হবে।’

সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক কমরেড দিলীপ বড়ুয়ার সভাপতিত্বে বিশিষ্ট কলাম লেখক ও বুদ্ধিজীবী সৈয়দ আবুল মকসুদ বিশেষ অতিথি হিসেবে এবং দলের পলিট ব্যুরোর সদস্য কমরেড লুৎফর রহমান, কমরেড মাহমুদুর রহমান বাবু প্রমূখ সভায় বক্তব্য রাখেন।

গণতন্ত্রক্লাবের সাথে জঙ্গিক্লাবের আপোষ গণতন্ত্রের জন্য আত্মঘাতী-তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা: বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০১৭ : ‘গণতন্ত্রক্লাবের সাথে জঙ্গিক্লাবের আপোষ গণতন্ত্রের জন্য আত্মঘাতী’ বলে উল্লেখ করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ’৬৯ এর গণঅভ্যূত্থানে শহীদ আসাদের ৪৮তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (মা.লে.) আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এ কথা বলেন।

হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘বাংলাদেশের রাজনীতিতে দু’টি ক্লাব। গণতন্ত্র ও প্রগতির ক্লাবের নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আর জঙ্গি, যুদ্ধাপরাধী ও সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসীক্লাবের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া। এই দুই ক্লাবের আপোষ ফর্মুলা গণতন্ত্রের জন্য আত্মঘাতী হবে এবং জঙ্গিদের পক্ষে যাবে। সুতরাং দেশকে নিরাপদ করতে জঙ্গি-সন্ত্রাসীলক্লাবকে নির্মূল করার বিকল্প নেই।’

এ সময় বিএনপিনেত্রীর উদ্দেশ্যে জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘নির্বাচন-সংলাপ পরে, আগে জঙ্গি, জামাত, রাজাকার ছাড়–ন। নির্বাচন কখনই জঙ্গি, জঙ্গিসঙ্গী, যুদ্ধাপরাধী ও তাদের দালালদের গণতন্ত্রে হালাল করার সুযোগ হতে পারেনা।’

আগামী নির্বাচনের আগেই জঙ্গি ও তাদের পৃষ্ঠপোষকদের ষড়যন্ত্র থেকে জনগণকে বাঁচানোর ওপর জোর গুরুত্ব আরোপ করে হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘যদি বাংলাদেশে আর হলি আর্টিজান, শোলাকিয়া, ব্লগার হত্যা, বিদেশি হত্যা না দেখতে চান, তবে আগামী নির্বাচনের আগেই জঙ্গি ও তাদের সঙ্গীদের নির্মূল করতে হবে।’

সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক কমরেড দিলীপ বড়ুয়ার সভাপতিত্বে বিশিষ্ট কলাম লেখক ও বুদ্ধিজীবী সৈয়দ আবুল মকসুদ বিশেষ অতিথি হিসেবে এবং দলের পলিট ব্যুরোর সদস্য কমরেড লুৎফর রহমান, কমরেড মাহমুদুর রহমান বাবু প্রমূখ সভায় বক্তব্য রাখেন ।

তথ্যমন্ত্রীর সাথে সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের নবপর্ষদের বৈঠক

বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম (বিএসআরএফ) এর নূতন পরিষদের সদস্যবৃন্দ বৃহস্পতিবার দুপুরে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু’র সাথে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সৌজন্য বৈঠকে মিলিত হন। ফোরামের নূতন পরিষদ সভাপতি দৈনিক ইত্তেফাকের বিশেষ সংবাদদাতা শ্যামল সরকারের নেতৃত্বে ৮ সদস্যের পরিচালনা পরিষদ এবং ৭ জন কার্যকরী সদস্য বৈঠকে যোগ দেন। প্রধান তথ্য অফিসার এ কে এম শামীম চৌধুরী এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বিএসআরএফ সভাপতি শ্যামল সরকার উত্থাপিত ক্রোড়পত্র ও তথ্য অধিদফতরের সাংবাদিক পরিচয়পত্র প্রদান এবং সচিবালয়ের গণমাধ্যম কেন্দ্রের উন্নয়ন বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী মন্ত্রণালয়ের সুবিবেচনার কথা উল্লেখ করে নূতন পরিষদকে অভিনন্দন জানান। মন্ত্রী বলেন, তথ্য মন্ত্রণালয় গণমাধ্যমকর্মীদের কল্যাণে সকল সময় অগ্রণী ভূমিকা পালন অব্যাহত রাখবে।

প্রধান তথ্য অফিসার এ কে এম শামীম চৌধুরী তার বক্তব্যে নূতন পরিষদকে অভিনন্দন জানান এবং সকল সহযোগিতার আশ্বাস দেন। সভা শেষে আনন্দঘন পরিবেশে তথ্যমন্ত্রীর পক্ষ থেকে সাংবাদিকবৃন্দ মিষ্টিমুখ করেন।

বিএসআরএফ এর নূতন কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাছরাঙা টেলিভিশন প্রতিনিধি মহসিন আশরাফ, সহ-সভাপতি দৈনিক ইনকিলাব প্রতিনিধি তালুকদার হারুন, সহ-সাধারণ সম্পাদক দি নিউ এইজ প্রতিনিধি মোস্তাফিজুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক দৈনিক যুগান্তর প্রতিনিধি উবায়দুল্লাহ বাদল, অর্থ সম্পাদক দৈনিক মানবজমিন প্রতিনিধি দীন ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক দারিপোর্র্ট২৪.কম প্রতিনিধি মাসুদ রানা, প্রচার-প্রকাশনা সম্পাদক দৈনিক সমকাল প্রতিনিধি ফসিহ উদ্দিন মাহতাব, কার্যকরী সদস্য দৈনিক জনকণ্ঠের তপন বিশ্বাস, বাংলাভিশনের মাহফুজুর রহমান, ইউএনবি’র মাসউদুল হক, সময় টিভি’র প্রসুন আশিষ, বাংলা ট্রিবিউন’র এস এম আব্বাস, দৈনিক সংবাদের রাকিব উদ্দিন ও দৈনিক ইনকিলাবের হাবিবুর রহমান বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে