লোহিত সাগরে জাহাজে হামলা বন্ধে নিরাপত্তা পরিষদের রেজুলেশনকে স্বাগত জানালেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

    0
    4

    লোহিত সাগরে জাহাজে হামলা বন্ধে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ২৭২২ রেজুলেশনকে স্বাগত জানিয়েছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, ক্রমাগত হুমকি এবং লোহিত সাগরে বাণিজ্যিক জাহাজের ওপর আক্রমণ, সামুদ্রিক বাণিজ্য রুট, নাবিকদের নিরাপত্তা এবং আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের জন্য মারাত্মক ঝুঁকি তৈরি করে।

    প্রতিমন্ত্রী আজ সোমবার লন্ডনে আন্তর্জাতিক নৌ সংস্থার (আইএমও) সদর দপ্তরে আইএমও’র ১৩২ তম কাউন্সিলের প্রথম অধিবেশনে বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
    ‘আন্তর্জাতিক নৌ সংস্থার (আইএমও) সেক্রেটারি জেনারেল আর্সেনিও ডমিনগুয়েজের দক্ষ এবং গতিশীল নেতৃত্বে আইএমও’র নির্বাহী পরিষদের একজন নির্বাচিত সদস্য হিসাবে ১৩২ তম আইএমও কাউন্সিলে ভাষণ দেওয়া বাংলাদেশের জন্য একটি বড় সম্মানের’ বলে উল্লেখ করেন প্রতিমন্ত্রী। ২০২৩ সালের আইএমও কাউন্সিল নির্বাচনে আমাদেরকে এই সম্মানিত কাউন্সিলে ফিরিয়ে আনার জন্য যে সকল সদস্য রাষ্ট্র সমর্থন করেছিল বাংলাদেশ তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ বলেও প্রতিমন্ত্রী উল্লেখ করেন।
    প্রতিমন্ত্রী বলেন, কাউন্সিলের একজন দায়িত্বশীল সদস্য হিসেবে বাংলাদেশ আইএমও’র মিশন, দৃষ্টিভঙ্গি এবং কৌশলগত দিকনির্দেশনা ও এই কাউন্সিলের অগ্রাধিকার বাস্তবায়নের প্রতি তার দ্ব্যর্থহীন প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করে যা সহকর্মী সদস্য রাষ্ট্রগুলির সাথে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতায় কাজ করে। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক শিপিং-এ জলদস্যুদের আক্রমণ এবং নিরীহ নাবিকদের জিম্মি করার বিরুদ্ধে অব্যাহত সচেতনতার জন্য বাংলাদেশ আইএমও মহাসচিব আর্সেনিও ডমিনগুয়েজের কাছে কৃতজ্ঞ।
    এমভি আবদুল্লাহ উদ্ধার প্রক্রিয়ায় সহায়তার জন্য বহুজাতিক নৌবাহিনী এবং এমভি আবদুল্লাহ এবং এর ক্রুদের সাথে সংহতির জন্য সহ আইএমও’র সদস্যদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন প্রতিমন্ত্রী।
    এ সময় অন্যান্যের মধ্যে আইএমও-তে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনীম এবং নৌপরিবহন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কমডোর এম মাকসুদ আলম উপস্থিত ছিলেন।
    গত মে মাসে আইএমও মহাসচিব আর্সেনিও ডোমিঙ্গুয়েজের বাংলাদেশে অত্যন্ত অনুপ্রেরণামূলক সফরের কথা স্মরণ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সে সময়ে আমরা আমাদের দেশের দ্রুত রূপান্তরিত সামুদ্রিক এবং ব্লু অর্থনীতির ল্যান্ডস্কেপ আমাদের স্বপ্নদর্শী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মেরিটাইম ভিশন শেয়ার করতে পেরে আনন্দিত হয়েছিলাম। যা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১৯৭৪ সালে প্রণয়ন করেছিলেন।

    একটি উত্তর ত্যাগ

    আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
    এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে