নদী বন্ধু সৈয়দ আবুল মকসুদ চিরনিদ্রায় শায়িত

0
40

জাতীয় প্রেসক্লাব ও কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে দুই দফা শ্রদ্ধা নিবেদনের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে তৃতীয় জানাযা শেষে আজিমপুর কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন সাংবাদিক, কলামিস্ট ও বুদ্ধিজীবী সৈয়দ আবুল মকসুদ।

এর আগে মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাতে ধানমন্ডি ৩২ এর তাকওয়া মসজিদে প্রথম ও বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর আড়াইটায় জাতীয় প্রেসক্লাবে দ্বিতীয় নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মৃত্যুবরণ করেন সৈয়দ আবুল মকসুদ।

দুপুর আড়াইটায় জাতীয় প্রেসক্লাবে আনা হয় সৈয়দ আবুল মকসুদের মরদেহ। সেখানে দ্বিতীয় জানাযায় অংশ নেয় তার দীর্ঘদিনের সহকর্মী ও শুভাকাঙ্খিরা।

এসময় সৈয়দ আবুল মকসুদের মরদেহে ফুলেল শ্রদ্ধা জানায় প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শওকত মাহমুদ, প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন, সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাইনুল আলম, আশরাফ আলী, কোষাধ্যক্ষ শাহেদ চৌধুরী, প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদ প্রমুখ। এসময় আরও শ্রদ্ধা জানায় বিএফইউজে, ডিইউজে, বাসস, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি, পিআইবি, সাব এডিটরস কাউন্সিলের নেতারা।

জানাজার আগে আবুল মকসুদের ছেলে নাসিফ মাকসুদ বলেন, বাবা এই দেশের মানুষের জন্য কাজ করেছেন। তার জন্য দোয়া করবেন। শ্রদ্ধা জানিয়ে জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষে আমরা একসঙ্গে একটা বইয়ের কাজ করছিলাম। তিনি সমগ্র জাতির জন্য লিখতেন। উদার ও সাদামনের মানুষ ছিলেন সৈয়দ আবুল মকসুদ। তিনি একজন মানবিক ও নিরপেক্ষ মানুষ ছিলেন। নীতি ও আদর্শে সারাজীবন তিনি অবিচল ছিলেন।

এরপর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেওয়া হয় সৈয়দ আবুল মকসুদের মরদেহ। সেখানে আওয়ামী লীগের পক্ষে তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানায় কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক। এসময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান ও আওয়ামী লীগ নেতা অসীম কুমার উকিল।

এসময় আরও শ্রদ্ধা জানায়- আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, বাসদ. জাসদ, ছাত্র ইউনিয়ন, যুব ইউনিয়ন, বাংলা একাডেমি, গণসংহতি আন্দোলন, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, বাম গণতান্ত্রিক জোট, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি, ভাসানী অনুসারী পরিষদ, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, আদিবাসী ফোরাম, নদী নিরাপত্তার সামাজিক সংগঠন নোঙরসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন।

শহীদ মিনারের ফুলেল শ্রদ্ধার পর মরদেহ নেওয়া হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে। সেখানে তৃতীয় ও শেষ জানাযা শেষে আজিমপুর কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে