নোঙর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বুড়িগঙ্গা নদীর দখল উচ্ছেদ পরবর্তী পর্যবেক্ষণ অনুষ্ঠিত।

0
314
নোঙর এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়'র বুড়িগঙ্গা নদীর দখল উচ্ছেদ পরবর্তী পর্যবেক্ষণ অনুষ্ঠানের ছবি

ঢাকার চারপাশের নদ-নদীর অবৈধ দখল উচ্ছেদ অভিযানের পরবর্তী বিআইডব্লিউটিএর সহযোগিতায় জরিপকারী জাহাজ তিতাসে বুড়িগঙ্গা নদীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণ শিক্ষার্থীদের সাথে এক নদী পর্যবেক্ষণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে নদী নিরাপত্তার সামাজিক সংগঠন নোঙর।

আজ সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০ সকাল ১০ ঘটিকায় ঢাকা সদরঘাট নৌবন্দর থেকে কাটাসুর আমিন মোমিন হাউজিং পর্যন্ত এ পরিদর্শন অনুষ্ঠান চলে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিল্ম এন্ড মিডিয়া বিভাগের ২০ জন তরুণ ছাত্র-ছাত্রীরা নদীর দখল উচ্ছেদের পরেও অপরিকল্পিত একাধিক ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের বর্তমান চিত্র দেখে তারা বিভিন্ন প্রশ্ন করতে থাকে।

নদী পর্যবেক্ষণ অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা রেঞ্জের নৌ-পুলিশ সুপার জনাব খন্দকার ফরিদুল ইসলাম। তিনি বলেন, নদীমাতৃক দেশের প্রত্যেক নাগরিকের দায়িত্ব হচ্ছে নদী সুরক্ষার জন্য এগিয়ে আসা।এই বিশাল কাজটি সম্ভব হচ্ছে নোঙর এর গণসচেতনতামূলক কর্মকান্ডের জন্য।আগামী প্রজন্মের জন্য একটি সুন্দর নদীমাতৃক পরিবেশ তৈরী করা আমাদের সকলের উদ্দেশ্য।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিল্ম এন্ড মিডিয়া বিভাগের শিক্ষক ও চ্যানেল আই এর বার্তা সম্পাদক জনাব মীর মাশরুর জামান রনি, পরিবেশ বিষয়ক সাংবাদিক জনাব জাহিদুজ্জামান।

নদী নিরাপত্তার সামাজিক সংগঠন নোঙর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জনাব সুমন শামস এর সভাপতিত্বে পর্যবেক্ষণ অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন নদী সুরক্ষার জন্য নোঙর দেশের প্রত্যেকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগের ছাত্র-শিক্ষকদের নিয়ে এই ধরণের আয়োজন নদী রক্ষায় বিশাল ভুমিকা পালন পালন করবে।

নদী পর্যবেক্ষণ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন নোঙর-ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহবায়ক জনাব আবদুস সালাম সময়, নোঙর-কেন্দ্রীয় সদস্য রুহুল আমীন, ঢাকা মহানগরের সম্মানিত ফাহিম হক সবুজ প্রমুখ।

গত ৩০ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখ থেকে বিআইডব্লিউটিএ বুড়িগঙ্গা নদীর উভয় তীরের অবৈধ উচ্ছেদ অভিযানকালে ১৬৫টি ছোট বড় টিনশেডের টং ঘর, দুটি পাকা দেয়াল, চারটি ইট–বালুর গদিসহ ১৯০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here